মেনু নির্বাচন করুন

ভূমি উন্নয়ন কর ও বিভিন্ন ফি
১* রেকর্ড সংশোধন তথা হালকরণ রেকর্ড সংশোধন তথা হাল করণের জন্যআপনাকে নামজারী/জমাভাগ জমা একত্র করতে হবে। আর এজন্য আপনাকে ১০(দশ)টাকারকোর্ট ফি সহ সহকারী কমিশনার(ভূমি)বরাবরে সাদা কাগজে দরখাস্ত করতে হবে। ২* দরখাস্তের সাথে দলিলাদির ফটোকপি,পর্চা,ওয়ারিশান সনদ(প্রযোজ্য ক্ষেত্রেফারায়েজ এর কপি)দিতে হবে। ৩*আবেদনটি প্রাপ্তির পর সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমিসহকারী কর্মকর্তা কর্তৃক তদন্ত করানো হবে।তদন্ত প্রতিবেদন প্রাপ্তির পরসহকারী কমিশনার(ভূমি)কর্তৃক শুনানী হবে। শুনানীর সময় মূল দলিল,পর্চা নিয়েআসতে হবে। ৫* প্রস্তাবটি মঞ্জুর হলে সংশ্লিষ্ট ভূমি অফিসে যেয়ে নূন্যতম ২৪৫টাকা জমা দিয়ে ডি,সি,আর ও খারিজ খতিয়ান পেয়ে যাবেন।আর এজন্য আপনার সর্বোচ্চসময় লাগবে ৪৫ দিন। ৬*ভূমি উন্নয়ন কর সংক্রান্ত জমির শ্রেণীভেদে খাজনার পরিমান ভিন্নভিন্ন হয়। আপত্তি থাকলে এবং শ্রেণী পরিবর্তন করতে হলে শুনানীর জন্য ১০(দশ)টাকা ফি দিয়ে সহকারী কমিশনার(ভূমি) বরাবর আবেদন করুন। ৭* অর্পিত সম্পত্তি(ভি,পি) ইজারা গ্রহণ অর্পিত সম্পত্তি সাধারণত ১ (এক) বছরেরজন্য ইজারা দেওয়া হয়। ৮* জমি ও অবকাঠামোর ভিত্তিতে লীজ মানি নির্ধারিতহয়।নবায়নের প্রয়োজনে সহকারী কমিশনার(ভূমি) বরাবর ১০(দশ) টাকার কোর্ট ফি সহবাংলা বছরের শুরুতেই আবেদন করুন। ৯*নবায়ন মঞ্জুর হলে নির্ধারিত লীজমানিসংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমি অফিসে পরিশোধ করে ডি,সি,আর সংগ্রহ করুন। ১০*সার্টিফিকেট কেস ভূমি উন্নয়ন কর বকেয়ার দায়ে আপনারবিরুদ্ধে সার্টিফিকেট কেস হতে পারে। এতে আপনার বাপ দাদার ভোগ দখলকৃত জমিনিলাম হয়ে যেতে পারে। ১১*সুতরাং এ দুর্ঘটনা এড়াতে সংশ্লিষ্ট উপজেলা ভূমি অফিসে নিয়মিত খাজনা পরিশোধ করুন। ১২* ২৫ বিঘা পর্যন্ত কৃষিজমির খাজনা মওকুফ হাল নাগাদ জমির বিবরণী দাখিল করেছেন, শুধুমাত্র কৃষিজমি যদি ২৫ বিঘা বা তার নিচে হয় তাহলে খাজনা মওকুফের সুযোগনিন। ১৩* আর এ কাজে সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর দশ (দশ) টাকার কোর্ট ফি দিয়েআবেদন করুন।